ম্যানুয়াল প্রেশার মাপার যন্ত্রের দাম ও বিস্তারিত

ম্যানুয়াল প্রেশার মাপার যন্ত্রের দাম ও বিস্তারিত

ব্লাড প্রেশার কি?

ব্লাড প্রেশার শব্দটির সাথে আমরা মোটামুটি সবাই পরিচিত। ব্লাড প্রেশার হল এমন শক্তি বা চাপের পরিমাপ যা আমাদের হার্টের মাধ্যমে  শরীরের চারপাশে রক্ত ​​পাম্প করে থাকে। ধমনীর দেয়ালে রক্তের চাপকে রক্তচাপ বলে। রক্তচাপের দুটি পরিমাপ করা হয়ে থাকে ; সিস্টোলিক (হৃদপিণ্ডের স্পন্দনের সময় পরিমাপ করা হয়, যখন রক্তচাপ সর্বোচ্চ থাকে) এবং ডায়াস্টোলিক (হার্টের স্পন্দনের মধ্যে পরিমাপ করা হয়, যখন রক্তচাপ সর্বনিম্ন থাকে)।

ম্যানুয়াল প্রেশার মাপার যন্ত্রের দাম ও বিস্তারিত

প্রেশার কেনো মাপবেনঃ

ব্লাড প্রেশার বেশি হলে যেমন সমস্যা ঠিক তেমনি কম হলেও সমস্যা । বেশিরভাগ মানুষ জানেনই না যে তার রক্তচাপ কত। আর আপনি যদি আপনার রক্তচাপ সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আপনার অবশ্যই একটা ভালো মানের প্রেশার মাপার মেশিন থাকা প্রয়োজন। কারন আমাদের উচিত নিয়ম করে একটি ভালো মানের প্রেশার মাপার যন্ত্র দিয়ে প্রেশার পরিমাপ করে প্রেশার নিয়ন্ত্রনে রাখা। আপনি উচ্চ রক্তচাপের অর্থাৎ High Blood Pressure এর রোগী নাকি নিম্ন রক্তচাপের অর্থাৎ Low Blood Pressure এর রোগী তা জানার জন্য আপনাকে নিয়মিত প্রেশার মাপতে হবে। আপনার শারীরিক সুস্থতা বজায় রাখতে এবং এই ধরনের যেকোনো বিপদ এড়াতে প্রেশার মাপা প্রয়োজন।

প্রেশার মাপার যন্ত্রঃ

আপনার কাছে যদি একটা ভালো মানের প্রেশার মেশিন থাকে তাহলে আপনি বাড়িতে বসেই আপনার প্রেশার মেপে নিতে পারবেন। প্রেশার মাপার মেশিন সাধারনত দুই ধরনের হয়ে থাকেঃ এনালগ বা ম্যানুয়াল এবং আরেকটি হলো ডিজিটাল।

এনালগ বা ম্যানুয়াল প্রেশার মাপার যন্ত্রঃ ম্যানুয়েল পদ্ধতিতে প্রেশার মাপার সিস্টেমটি অনেক পুরাতন । এই পদ্ধতিতে প্রেশার পরিমাপ করা একটু কঠিন হলেও এতে করে আপনার ১০০% সঠিক রেজাল্ট আসে। ম্যানুয়াল প্রেশার মেশিনে দুটি জিনিস থাকে যার মাধ্যমে প্রেশার মাপা হয়। একটি হলো স্টেথোস্কোপ এবং আরেকটি হলো স্ফিগমোম্যানোমিটার। স্টেথোস্কোপ (ইংরেজি: Stethoscope) হলো হৃৎস্পন্দন এবং নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস এর শব্দ শুনতে ব্যবহার করা হয়। স্ফিগমোম্যানোমিটার হলো রক্তচাপ পরিমাপক যন্ত্র।

ম্যানুয়াল প্রেশার মাপার যন্ত্রের দাম ও বিস্তারিত

আপনাদের  জন্য আমাদের কিছু ম্যানুয়েল ব্লাড প্রেশার মেশিনের দাম ও ছবিসহ বিস্তারিত দেয়া হলোঃ

 

ডিজিটাল প্রেশার মাপার যন্ত্রঃ ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রেশার মাপার সিস্টেমটিও এখন অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এই পদ্ধতিতে আপনি কারো সাহায্য ছাড়া ঘরে বসে নিজেই নিজের প্রেশার মেপে নিতে পারবেন। অনেকের ধারনা থাকে যে ডিজিটাল পদ্ধতিতে রেটিং ভুল দেখায় এক্ষেত্রে আপনি যদি মোটামুটি দাম দিয়ে একটা ভালো মেশিন কিনেন তাহলে আপনার এই সমস্যাটি হবেনা ।

আমাদের কিছু ডিজিটাল ব্লাড প্রেশার মেশিনও রয়েছে ।এই মেশিনগুলোতে আপনি সঠিক রেজাল্ট পাবেন।

আপনাদের সুবিধার জন্য এগুলোর দাম ও ছবিসহ বিস্তারিত দেয়া হলোঃ

 

প্রেশার পরিমাপের সময় কিছু নির্দেশনাঃ

প্রেশার পরিমাপের সময় এমন কিছু বিষয় আছে যা আমাদের গুরুত্বসহকারে খেয়াল রাখতে হবে। সেগুলো হলোঃ

১। ব্লাড প্রেসার মাপার আগে ৩০মিনিট কিছু নির্দিষ্ট কাজ করা যাবে না, কাজগুলো হল চা কফি সিগারেট , ধূমপান  । চা , কফিতে ক্যাফেইন থাকে যা ব্লাড প্রেসার বাড়িয়ে দিতে পারে , সিগারেটে আছে নিকোটিন যা ব্লাড প্রেসার বাড়িয়ে দিতে পারে।

২। প্রেশার পরিমাপের সময় আপনাকে অবশ্যই রিলাক্স থাকতে হবে , কোনো ধরনের কথা বলা যাবেনা।

৩। প্রেসার মাপার সময় চেয়ারে সোজা হয়ে বসে পিঠ হেলান দিয়ে বসতে হবে , তবে রুগি যদি বসে না মাপতে পারে সেক্ষেত্রে শুয়ে মাপতে পারবেন ।

৪। দুই পা ক্রস করে না রেখে ফ্লোরের উপর সোজা করে রাখতে হবে।

৫। প্রেশার পরিমাপের সময় আপনার হাত থাকতে হবে আপনার হার্টের লেভেলের বরাবর। আর অবশ্যই আপনার হাতে কাফ লাগানোর আগে হাতের জামা কাপড় সরিয়ে নিতে হবে।

এসব নিয়মগুলো মেনে আপনাকে আপনার ব্লাড প্রেশার মাপতে হবে।

প্রেশার মাপার মেশিনের দাম কখনোই খুব বেশী হয়না । তাই নিয়মিত প্রেশার মাপতে হলে এখনি একটা প্রেশার মাপার মেশিন কিনে বাড়িতে রাখতে পারেন । এতে করে আপনি সচেতন থাকতে পারবেন এবং নিজের প্রেশার নিয়ন্ত্রনে রাখতে পারবেন।

Contact Us: –(Techno Health)
Call 24/7 ( +880 1842-756014 )
Facebook | Instagram | YouTube

Office Address :
প্রধান অফিস : হাউজ ৪২ , লেক ড্রাইভ রোড , সেক্টর ৭ , উত্তরা , ঢাকা ।
শাখা অফিসঃ শপ নং ৭ এবং ৮ হোল্ডি নং ২১/এ , বাগদাদ সার্জিক্যাল মার্কেট , তোপখানা রোড , ঢাকা ।
Google Map : Click Here